বর্তমান সময়ে মোবাইল ফোন নেই এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর।


আজ আমরা সকলেই মোবাইল ফোন ব্যবহার করছি। যার ফলে মোবাইল কোম্পানিগুলোরও প্রতিনিয়ত বিকাশ ঘটছে।


মোবাইল কোম্পানি গুলো প্রতিনিয়ত বিভিন্ন বাজােটের, বিভিন্ন স্পেসিফিকেশন নিয়ে নতুন মোবাইল লঞ্চ করেই চলেছে।


ফলে আমাদের মনে নানান ধরনের প্রশ্নের উৎপত্তি হচ্ছ। আমি কোন ব্র্যান্ডের ফোন নেব, কেমন বাজেটের ফোন নিলে ভালো হবে, আমি কি এতে ভালো করে গেমস খেলতে পারব, এর ডিসপ্লে কেমন? আরও কত কি?


আর আপনাদের এই সকল সমস্যার সমাধান দেওয়ার জন্য আজ ShoutOnBangla আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছে ১৫,০০০ টাকার মধ্যে সেরা ৫টি মোবাইল ফোন নিয়ে।

Best Smartphone undet 150000


যদি মোবাইল ফোন কেনার জন্য আপনার বাজেট ১৫,০০০ টাকা হয় তবে এই পোস্টটি আপনার জন্যই। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।



৫. Infinix Hot 10s NFC

১৫,০০০ টাকার বাজেটের মধ্যে আমাদের লিস্টে থাকা ৫ নম্বর মোবাইল ফোনটি হলো Infinix ব্র্যান্ডের একটি ফোন যার মডেল নাম্বার হলো Infinix Hot 10s NFC


এই স্ম্যার্ট ফোনটি এই বাজেটের মধ্যে খুবই ভালো কিছু অফার করছে। যা আপনাকে এর দিকে আকৃষ্ট করবে। তহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক Infinix Hot 10s NFC এই স্ম্যার্ট ফোনটি আমাদের কি কি অফার করছে।


ডিসপ্লে

Infinix Hot 10s NFC এই স্ম্যার্ট ফোনটির ডিসপ্লে সেকশনে রয়েছে ৬.৮২" ইঞ্চি-এর HD+ ডিসপ্লে। অর্থাৎ এই ফোনটির ডিসপ্লে রেজুলেশন ৭২০× ১৬৪০ পিকজাল। যার screen-to-body রেসিও ৮৩.১%।

এই ফোনটির ডিসপ্লে সেকশনে সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হলো এর ফাস্ট রিফ্রেশ রেট। এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে 90Hz এর ফাস্ট রিফ্রেশ রেট ব্যবহার করা হয়েছে। এই স্ক্রিনের পিপিআই ডেনসিটি হলো ২৬৩ পিপিআই।

অপারেটিং সিস্টেম

Infinix Hot 10s NFC এই স্ম্যার্ট ফোনটি রান করছে XOS 7.6 যার অপারেটিং সিস্টেম হলো Android 11 অপারেটিং সিস্টেম।

এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে MediaTek Helio G85 Octa Core প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। যা 12nm এর একটি প্রসেসর। এতে GPU হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে Mali-G52।

ক্যামেরা

এই স্ম্যার্ট ফোনের rare এ dual camera ব্যবহার করা হয়েছে। ৪৮ মেগা পিক্সেলের মেইন সুটার ও ২ মেগা পিক্সেলের ডেপথ্ সেন্সর।

এতে সেকেন্ডারি ক্যামেরা হিসেবে ৮ মেগা পিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা ব্যাবহার করা হয়েছে।

এই মোবাইল ফোনে আপনি FHD তে 30fps পর্যন্ত ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন।

এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে ৫০০০mAh এর নন-রিমুবেভল ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। এতে সিকিউরিটির জন্য মোবাইল ফোনটির রেয়ারে ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে।

এই স্ম্যার্ট ফোনটি ৪টি কালার ভেরিয়েন্টে আমাদের দেশে পাওয়া যায়। আর তা হলোঃ Black, Purple, Morandi Green, Heart of Ocean কালার।

এই স্ম্যার্ট ফোনটি ২টি ভেরিয়েন্টে লঞ্চ করা হয়েছে ৪ জিবি - ৬৪ জিবি ও ৪ জিবি - ১২৮ জিবি। যার বেস ভেরিয়েন্টের মূল্য ১১,৯৯০ টাকা।

৪. Techno Spark 7 Pro

১৫,০০০ টাকার বাজেটের মধ্যে আমাদের লিস্টে থাকা ৪ নম্বর মোবাইল ফোনটি হলো Techno ব্র্যান্ডের একটি ফোন যার মডেল নাম্বার হলো Techno Spark 7 Pro


সমপ্রতি Techno তাদের মোবাইল মার্কে প্লেসে খুবই ভলো কাজ করছে। তারা প্রতিনিয়তই কম দামের মধ্যে ভালো স্পেসিফিকশনের সাথে নতুন নতুন স্ম্যার্ট ফোন লঞ্চ করছে। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক Techno Spark 7 Pro এই স্ম্যার্ট ফোনটি আমাদের কি কি অফার করছে।


ডিসপ্লে

Techno Spark 7 Pro এই স্ম্যার্ট ফোনটির ডিসপ্লে সেকশনে রয়েছে ৬.৬" ইঞ্চি-এর HD+ ডিসপ্লে। অর্থাৎ এই ফোনটির ডিসপ্লে রেজুলেশন ৭২০× ১৬৪০ পিকজাল। যার screen-to-body রেসিও ৮৩.৭%।

এই স্ম্যার্ট ফোনটিতেও ডিসপ্লে সেকশনে ফাস্ট রিফ্রেশ রেট ব্যবহার করা হয়েছে। এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে 90Hz এর ফাস্ট রিফ্রেশ রেট ব্যবহার করা হয়েছে। এই স্ক্রিনের পিপিআই ডেনসিটি হলো ২৬৬ পিপিআই।

অপারেটিং সিস্টেম

Techno Spark 7 Pro এই স্ম্যার্ট ফোনটি রান করছে HIOS 7.5 যার অপারেটিং সিস্টেম হলো Android 11 অপারেটিং সিস্টেম।

এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে MediaTek Helio G80 Octa Core প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। যা 12nm এর একটি প্রসেসর। এতে GPU হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে Mali-G52।

ক্যামেরা

এই স্ম্যার্ট ফোনের rare এ triple camera ব্যবহার করা হয়েছে। যার মেইন সুটারটি হলো ৪৮ মেগা পিক্সেলের।

এতে সেকেন্ডারি ক্যামেরা হিসেবে ৮ মেগা পিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা ব্যাবহার করা হয়েছে।

এই মোবাইল ফোনে আপনি FHD তে 30fps পর্যন্ত ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন।

এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে ৫০০০mAh এর নন-রিমুবেভল ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। এতে সিকিউরিটির জন্য মোবাইল ফোনটির রেয়ারে ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে।

এই স্ম্যার্ট ফোনটি ৪টি কালার ভেরিয়েন্টে আমাদের দেশে পাওয়া যায়। আর তা হলোঃ Alps Blue, Spruce Green, Neon Dream, Magnet Black কালার।

এই স্ম্যার্ট ফোনটি ২টি ভেরিয়েন্টে লঞ্চ করা হয়েছে ৪ জিবি - ৬৪ জিবি ও ৬ জিবি - ১২৮ জিবি। যার বেস ভেরিয়েন্টের মূল্য ১৩,৪৯০ টাকা।

৩. Realme Narzo 30A

১৫,০০০ টাকার বাজেটের মধ্যে আমাদের লিস্টে থাকা ৩ নম্বর মোবাইল ফোনটি হলো Realme Narzo 30A


এই স্ম্যার্ট ফোনটি এই বাজেটের মধ্যে সেরা স্ম্যার্ট ফোনগুলোর একটি। চলুন দেখে নেওয়া যাক Realme Narzo 30A এই স্ম্যার্ট ফোনটি আমাদের কি কি অফার করছে।


ডিসপ্লে

Realme Narzo 30A এই স্ম্যার্ট ফোনটির ডিসপ্লে সেকশনে রয়েছে ৬.৫" ইঞ্চি-এর HD+ IPS LCD ডিসপ্লে। অর্থাৎ এই ফোনটির ডিসপ্লে রেজুলেশন ৭২০× ১৬৪০ পিকজাল। যার screen-to-body রেসিও ৮১.৭%।

এই স্ক্রিনের পিপিআই ডেনসিটি হলো ২৬৩ পিপিআই। এবং এই মোবাইল ফোনের স্ক্রিনের পিক ব্রাইটনেস ৫৭০ নিটস্।

অপারেটিং সিস্টেম

Realme Narzo 30A এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে ইউআই হিসেবে Realme UI ব্যবহার করা হয়েছে। এবং এর অপারেটিং সিস্টেম হলো Android 10 অপারেটিং সিস্টেম।

এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে MediaTek Helio G85 Octa Core প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। যা 12nm এর একটি প্রসেসর। এতে GPU হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে Mali-G52।

ক্যামেরা

এই স্ম্যার্ট ফোনের rare এ dual camera ব্যবহার করা হয়েছে (৪৮ মেগা পিক্সেল + ২ মেগা পিক্সেল)।

এতে সেকেন্ডারি ক্যামেরা হিসেবে ৮ মেগা পিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা ব্যাবহার করা হয়েছে।

এই মোবাইল ফোনে আপনি FHD তে 30fps পর্যন্ত ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন।

এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে ৬০০০mAh এর নন-রিমুবেভল ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। যা 18W এর ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এতে সিকিউরিটির জন্য মোবাইল ফোনটির রেয়ারে ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে।

এই স্ম্যার্ট ফোনটি ২টি কালার ভেরিয়েন্টে আমাদের দেশে পাওয়া যায়। আর তা হলোঃ Laser Black, Laser Blue কালার।

এই স্ম্যার্ট ফোনটি ২টি ভেরিয়েন্টে লঞ্চ করা হয়েছে ৩ জিবি - ৩২ জিবি ও ৪ জিবি - ৬৪ জিবি। যার বেস ভেরিয়েন্টের মূল্য ১২,৯৯০ টাকা।

২. Xiaomi Redmi 20X

আমাদের লিস্টে ২ নম্বরে থাকা মোবাইল ফোনটি হলো MI ব্র্যান্ডের একটি ফোন যার মডেল নাম্বার হলো Xiaomi Redmi 20X


এই স্ম্যার্ট ফোনটি এখানো বাংলাদেশের বাজারে অফিশিয়ালি লঞ্চ হয়নি। আপনি এটা আন-অফিশিয়ালি কিনতে পারবেন। তহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক Xiaomi Redmi 20X এই স্ম্যার্ট ফোনটি আমাদের কি কি অফার করছে।


ডিসপ্লে

Xiaomi Redmi 20X এই স্ম্যার্ট ফোনটির ডিসপ্লে সেকশনে রয়েছে ৬.৫" ইঞ্চি-এর FHD+ IPS LCD ডিসপ্লে। অর্থাৎ এই ফোনটির ডিসপ্লে রেজুলেশন ১০৮০ × ২৪০০ পিকজাল। যার screen-to-body রেসিও ২০ঃ৯।

এই ফোনটিতেও ডিসপ্লে সেকশনে 90Hz এর ফাস্ট রিফ্রেশ রেট। এই মোবাইল ফোনের স্ক্রিনের পিপিআই ডেনসিটি হলো ৪০৫ পিপিআই।

অপারেটিং সিস্টেম

Xiaomi Redmi 20X এই স্ম্যার্ট ফোনটি রান করছে MIUI 12 যার অপারেটিং সিস্টেম হলো Android 11 অপারেটিং সিস্টেম।

এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে MediaTek MT6833 Dimensity 700 5G Octa Core প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। যা 7nm এর একটি প্রসেসর। এতে GPU হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে Mali-G57।

ক্যামেরা

এই স্ম্যার্ট ফোনের rare এ triple camera ব্যবহার করা হয়েছে। ৪৮ মেগা পিক্সেলের মেইন সুটার, ২ মেগা পিক্সেলের ম্যাক্রো ও ২ মেগা পিক্সেলের ডেপথ্ সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে।

এতে সেকেন্ডারি ক্যামেরা হিসেবে ৮ মেগা পিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা ব্যাবহার করা হয়েছে।

এই মোবাইল ফোনে আপনি 4K তে 30fps পর্যন্ত ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন।

এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে ৫০০০mAh এর নন-রিমুবেভল ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। যা 18W এর ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এতে সিকিউরিটির জন্য মোবাইল ফোনটিতে সাইড মাউনটেড ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে।

এই স্ম্যার্ট ফোনটি ২টি ভেরিয়েন্টে লঞ্চ করা হয়েছে ৪ জিবি - ১২৮ জিবি ও ৬ জিবি - ১২৮ জিবি। যার বেস ভেরিয়েন্টের মূল্য ১৩,৯৯০ টাকা।



৫. Xiaomi POCO M3

১৫,০০০ টাকার বাজেটের মধ্যে আমাদের লিস্টে থাকা নম্বর ১ মোবাইল ফোনটি হলো MI এর গেমিং সিরিজ POCO-র একটি ফোন যার মডেল নাম্বার হলো Xiaomi POCO M3


এই স্ম্যার্ট ফোনটি এই বাজেটের মধ্যে সেরা স্ম্যার্ট ফোন। আমরা সকলেই POCO-র ফোন সম্পর্কে জানি। তারা সবসময়ই গেমারসদের টার্গেট করে অনেক ভালো স্পেসিফিকেশনসহ মোবাইল ফোন লঞ্চ করে। তহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক Xiaomi POCO M3 এই স্ম্যার্ট ফোনটি তারা কি কি অফার করছে।


ডিসপ্লে

Xiaomi POCO M3 এই স্ম্যার্ট ফোনটির ডিসপ্লে সেকশনে রয়েছে ৬.৫৩" ইঞ্চি-এর FHD IPS LCD ডিসপ্লে। অর্থাৎ এই ফোনটির ডিসপ্লে রেজুলেশন ১০৮০ × ২৪০০ পিকজাল। যার screen-to-body রেসিও ৮৩.৪%।

এই স্ক্রিনের পিপিআই ডেনসিটি হলো ৩৯৫ পিপিআই। এর স্ক্রিন ব্রাইটনেস হলো ৪০০ নিটস্। এবং এই মোবাইল ফোনটির স্ক্রিন প্রটেকশনের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে Corning Gorilla Glass 3।

অপারেটিং সিস্টেম

Xiaomi POCO M3 এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে ইউআই হিসেবে MIUI 12 ব্যবহার করা হয়েছে। এবং এর অপারেটিং সিস্টেম হলো Android 10 অপারেটিং সিস্টেম।

এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে Qualcomm SM6115 Snapdragon 662 Octa Core প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। যা 11nm এর একটি প্রসেসর। এতে GPU হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে Adreno 610।

ক্যামেরা

এই স্ম্যার্ট ফোনের rare এ triple camera ব্যবহার করা হয়েছে। ৪৮ মেগা পিক্সেলের মেইন সুটার, ২ মেগা পিক্সেলের ম্যাক্রো ও ২ মেগা পিক্সেলের ডেপথ্ সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে।

এতে সেকেন্ডারি ক্যামেরা হিসেবে ৮ মেগা পিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা ব্যাবহার করা হয়েছে।

এই মোবাইল ফোনে আপনি FHD তে 30fps পর্যন্ত ভিডিও রেকর্ড করতে পারবেন।

এই স্ম্যার্ট ফোনটিতে ৬০০০mAh এর নন-রিমুবেভল ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। যা 18W এর ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এতে সিকিউরিটির জন্য মোবাইল ফোনটিতে সাইড মাউনটিড ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে।

এই স্ম্যার্ট ফোনটি ৩টি কালার ভেরিয়েন্টে আমাদের দেশে পাওয়া যায়। আর তা হলোঃ Cool Blue, Poco Yellow, Power Black কালার।

এই স্ম্যার্ট ফোনটি ২টি ভেরিয়েন্টে লঞ্চ করা হয়েছে ৪ জিবি - ৬৪ জিবি ও ৪ জিবি - ১২৮ জিবি। যার বেস ভেরিয়েন্টের মূল্য ১৪,৯৯০ টাকা।


এই ছিল ১৫,০০০ টাকা বাজেটের মধ্যে সেরা ৫টি মোবাইল ফোন।

আশা করি এই পোস্টটি আপনার ভালো লেগেছে। যদি আপনার মনে কোনো প্রশ্ন থাকে তবে কমেন্ট করে জিজ্ঞেস করুন। এবং অবশ্যই পোস্টটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন।

Stay Safe, Keep With Us.
Goodbye!