ঘরে বসে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২১ | বিকাশ একাউন্ট খুললেই ১২৫ টাকা বোনাস

বর্তমান সময়ে প্রযুক্তির অগ্রগতির সাথে সাথে যেমন বেড়েছে অনলাইন শপিং করার প্রবণতা, ঠিক তেমনি বেড়েছে অনলাইন পেমেন্ট সার্ভিসের প্রয়োজনীয়তা।

কিভাবে বিকাশ একাউন্ট খুলব


আর আপনাদের এই প্রয়োজন মেটাতে ২০১১ সালে ব্রাক ব্যাংক বের করে বিকাশ (Bkash) নামের অনলাইন ব্যাংকিং সার্ভিস। শুরুতে বিকাশের সাহায্যে ক্যাশ ইন, ক্যাশ আউট ও সেন্ড মানি করা গেলেও বর্তমানে আপনি বিকাশের সাহায্যে মোবাইল রিচার্জ করা, ইলেকট্রিক বিল দেওয়া, ট্রেন বাস ফ্লাইটের টিকিট কাটা, অনলাইন রিচার্জ, ইন্টারনেট থেকে শপিং ইত্যাদি সকল কাজই করা সম্ভব।


এর ফলে দিনে দিনে সকলের মাঝেই বিকাশ এর জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। তবে সকলেই জানেন না ঠিক কিভাবে বিকাশ একাউন্ট খুলতে হয়। ফলে অনেকেই ইন্টারনেটে সার্চ করে কিভাবে বিকাশ একাউন্ট খুলব (How to create Bkash account)


আপনাদের এ সমস্যার সমাধানের জন্য আজ আমি আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি বিকাশ একাউন্ট খুলার সবচেয়ে সহজ ২টি উপায়। এবং আপনি নতুন বিকাশ একাউন্ট খুললেই পাবেন ১২৫ টাকা বোনাস


আরও জানুনঃ বিকাশ রিওয়ার্ড থেকে আয় করার উপায়


ঘরে বসে বিকাশ একাউন্ট খুলার উপায়

যখন বিকাশ প্রথম প্রথম লঞ্চ করা হয় তখন বিকাশ একাউন্ট খুলা অনেক জটিল কাজ ছিল। তাই তখন বিকাশ একাউন্ট খুলতে কোনো একটা বিকাশ সার্ভিস সেন্টারে যেতে হতো।


কিন্তু বিকাশ এপ লঞ্চ হওয়ার পর নতুন বিকাশ একাউন্ট খুলা হয়ে গেছে একদম সহজ। এখন যেকেউ ঘরে বসে মিনিটের মধ্যেই তার নতুন বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারে।


নতুন বিকাশ একাউন্ট খুলতে যা যা প্রয়োজনঃ

  • যার বিকাশ একাউন্ট খুলবেন তার এন আই ডি কার্ড। (অনলাইন কপি হলেও চলবে)
  • একটি একটিভ মোবাইল নম্বর।
  • যার একাউন্ট খুলবেন তাকে আপনার সাথেই রাখতে হবে।


বিকাশ এপের সাহায্যে বিকাশ একাউন্ট খুলার উপায়

নতুন বিকাশ একাউন্ট খুলার সবচেয়ে সহজ উপায় হলো বিকাশ এপ ব্যবহার করে একাউন্ট খোলা। তবে এর জন্য আপনার কাছে অবশ্যই একটি স্মার্ট ফোন থাকতে হবে। কারণ ফিচার্ড ফোনে বিকাশ এপ ইন্সটল করা যায় না।


আপনার কাছে যদি স্মার্ট ফোন থাকে তবে নিচের পদ্ধতি অবলম্বন করে আপনি খুব সহজেই বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন। এপ দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলার উপায়ঃ

১. নিজে নিজে ঘরে বসে মোবেইল দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে বিকাশ অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে। নতুন একাউন্ট খোললেই ২৫ টাকা বোনাস। এবং খোলার পর আপনি আপনার প্রথম ট্রান্সেকশনে পাবেন ১০০ টাকা বোনাস (১২৫ টাকা বোনাস পেতে এপটি অবশ্যই নিচের লিংক এর মাধ্যমে ডাউনলোড করতে হবে)। নিচের লিংক থেকে Bkash app ডাউনলোড করে আপনার এন্ড্রয়েড ফোনটিতে ইনস্টল করুন।


বিকাশ এপ ডাউনলোড লিংকঃ ডাউনলোড লিংক


২. বিকাশ এপটি আপনার ফোনে ইন্সটল হওয়ার পর এটি ওপেন করুন। লক্ষ্য রাখবেন যেন আপনার ফোনে ইন্টারনেট কানেকশন দেওয়া থাকে।


এবার নিচের স্টেপগুলো অনুসরণ করে বিকাশ একাউন্ট তৈরি করুন।

বিকাশ একাউন্ট খুলার উপায় ১

৩. বিকাশ অ্যাপটি অপেন করার পর উপরের ১ নং চিত্রের মতো একটি এন্টারফেজ ওপেন হবে। সেখানে লগ ইন/রেজিস্টেশন বাটনটিতে ক্লিক করুন।


৪. লগ ইন/রেজিস্ট্রেশন বাটনে ক্লিক করার পর আপনাকে উপরের ২ নং চিত্রের মতো পাতায় নিয়ে আসবে। সেখানে যে নাম্বারটি দিয়ে বিকাশ অ্যাকাউন্ট খোলতে চাচ্ছেন সেই নাম্বারটি দিয়ে পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন।


৫. তারপর আপনার মোবাইল নাম্বারটি কোন অপারেটরের তা সিলেক্ট করুন। সিলেক্ট করে আবার পরবর্তী বাটনে ক্লিক করুন।


৬. আপানার মোবাইল নাম্বারটি যাচাই করার জন্য আপনার নাম্বারে একটি ওটিপি (OTP) পাঠানো হবে। তাই অবশ্যই আপনার মোবাইল নাম্বারটি ফোনে এক্টিভ করা থাকতে হবে। ওটিপি মেসেজিটি আসার সাথে সাথেই অটোমেটিক বিকাশ এপ গ্রহন করে নিবে। ৪ নং চিত্রের মতো, "কনফার্ম করুন" এ ক্লিক করুন।

বিকাশ একাউন্ট খুলার উপায় ২


৭. তারপর ৫ নং চিত্রের মতো নতুন পাতায় আসার পর আপনাকে জাতীয় পরিচয় পত্র বা এ আই ডি কার্ড এর উপরের পৃষ্টার ছবি তুলে সাবমিট করুন।


৮. এরপর জাতীয় পরিচয় পত্রের অপর পৃষ্টার ছবি তুলে ‘সাবমিট করুন’ বাটনে ক্লিক করুন। এরপর বিকাশ আপনার কিছু পার্সনাল ইনফরমেশন নিবে (যেমনঃ আপনার লিঙ্গ, আয়, পেশা ইত্যাদি)।


৯. এবার যার এন আইডি কার্ড দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলছেন তার মুখের ছবি মোবাইলের ফ্রন্ট ক্যামেরা দিয়ে তুলে ‘তির’ বাটনে ক্লিক করুন।


১০. চেহারার ছবি তুলে সাবমিট করে দিলেই আপনার একাউন্ট খোলা হয়ে ‍যাবে।


আপনার বিকাশ একাউন্টটি খোলা হয়ে গেলে একে এক্টিভেট করতে হবে। এর জন্য নিচের স্টেপগুলো অনুসরণ করুনঃ

১. আপনার ফোনের ডায়াল অপশনে গিয়ে *247# টাইপে করে কল বাটনে ক্লিক করুন।

২. "Activate Mobile Menu" অপশনটি বেছে নিন।

৩. এবার আপনি আপনার ৫ ডিজিটের বিকাশ পিন নম্বর বেছে নিন।

৪. পিন নম্বরটি পুনরায় টাইপ করে কনফার্ম করুন।


ব্যাস আপনার বিকাশ একাউন্টটি একটিভেট হয়ে গেল।


বিকাশ এপ এর বেসিক ওভারভিউ

বিকাশ এপ এর মধ্যে লগইন করলে নিচের ছবির মতো ডিসপ্লে ইন্টারফেস দেখতে পাবেন। ছবির মধ্যে কোনটা কোন আইকন সেটা জেনে নিন। 

বিকাশ হোম পেজ

Balance tab: উপরে "ব্যালেন্স দেখুন" লেখা আছে সেখানে ট্যাপ করলে আপনার একাউন্ট এ কত balance আছে সেটা দেখতে পাবেন।


সেন্ড মানিঃ এর মাধ্যমে আপনি যেকোনো ব্যাক্তিকে টাকা সেন্ড করতে পারবেন।


মোবাইল রিচার্জঃ আপনি যে কোনো মোবাইল নাম্বারে রিচার্জ করতে পারবেন। 


অ্যাড মানিঃ এখানে আপনি এজেন্ট বা ব্যাঙ্ক এর সাহায্যে বিকাশে মানি অ্যাড করতে পারবেন। এছাড়া এখানে মাস্টার কার্ড বা ভিসা কার্ড থাকলে সেটার সাহায্যে ও টাকা অ্যাড করতে পারেন।


পে বিলঃ এর সাহায্যে ইউটিলিটি বিল যেমন বিদ্যুৎ, গ্যাস, ইন্টারনেট এবং অন্যান্য পরিষেবাগুলি বিল এই app এর সাহায্যে দিতে পারবেন।  


টিকেটঃ এই অপশনে মুভি টিকিট পর্চেস থেকে শুরু করে বাস,ট্রেন,ফ্লাইট ,লঞ্চের টিকিট buy করতে পারবেন।


যাইহোক, আমি এই app এর একটা ব্যাসিক ওভারভিউ দিলাম। আর বিস্তারিত জানতে হলে ইউটিউবে অনেক ভিডিও আছে সেগুলো দেখতে পারেন।


বিকাশ নিয়ে প্রশ্ন-উত্তর

প্রশ্ন-১ঃ বিকাশ কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়?

উত্তরঃ ২০১১ সালে বিকাশ প্রতিষ্ঠিত হয়।


প্রশ্ন-২ঃ বিকাশ কেন প্রতিষ্ঠা করা হয়?

উত্তরঃ অনলাইন লেনদেন করার জন্য বিকাশ প্রতিষ্ঠা করা হয়।


প্রশ্ন-৩ঃ একটি nid card দিয়ে কয়টি বিকাশ একাউন্ট খোলা যায়?

উত্তরঃ একটি এন আই ডি কার্ড দিয়ে আপনি একটি বিকাশ একাউন্ট খোলতে পারবেন।


প্রশ্ন-৪ঃ বিকাশ একাউন্ট এন আই ডি কার্ড অনলাইন কপি দিয়ে খোলা যাবে কি?

উত্তরঃ অবশ্যই আপনি খোলতে পারবেন। যদি আপনার ১৮ বছর হয়, তবে জাতীয় পরিচয় পত্রের অনলাইন কপি দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলতে পারবেন।


প্রশ্ন-৫ঃ বিকাশ এপ দিয়ে টাকা আয় করা যায় কি?

উত্তরঃ হ্যাঁ, বিকাশ এপ আপনার বন্ধুদের সাথে রেফার করে টাকা আয় করতে পারবেন।


প্রশ্ন-৬ঃ বিকাশ এপ থেকে কিভাবে ১০০ টাকা বোনাস পাবো?

উত্তরঃ আমি উপরে যে লিংক দিয়েছি তার সাহায্যে বিকাশ এপ ডাউনলোড করে একাউন্ট খোললে প্রথম ট্রান্সেকশনে আপনি ১০০ টাকা বোনাস পাবেন।


প্রশ্ন-৭ঃ বিকাশ কাস্টমার কেয়ার নাম্বার কত?

উত্তরঃ ১৬২৪৭ বা ০২-৫৫৬৬৩০০১।


প্রশ্ন-৮ঃ বিকাশ একাউন্ট চেক কোড কত?

উত্তরঃ *২৪৭# হলো বিকাশ একাউন্ট চেক কোড।


প্রশ্ন-৯ঃ বিকাশ একাউন্ট খোলা কি ফ্রি?

উত্তরঃ হ্যাঁ। আপনি ফ্রিতে উপরের নির্দেশনা অনুসরণ করে বিকাশ একাউন্ট খুলতে ও ব্যবহার করতে পারবেন।


প্রশ্ন-১০ঃ বিকাশ এর সাহায্যে কি বিল পে করা সম্ভব?

উত্তরঃ হ্যাঁ। আপনি বিকাশ ব্যবহার করে খুব সহজেই বিদ্যুৎ বিল, গ্যাস বিল, টেলিফোন বিল ইত্যাদি পে করতে পারবেন।


প্রশ্ন-১১ঃ অ্যাপ ছাড়া কি বিকাশ একাউন্ট খোলা যায়?

উত্তরঃ হ্যাঁ। তবে সেক্ষেত্রে আপনার বিকাশ এজেন্টের কাছে অথবা বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে যেতে হবে।


শেষ কথা

এই ছিল বিকাশ একাউন্ট খোলা নিয়ে আমাদের আজকের পোস্ট। আশা করি এই পোস্টটি পড়ে আপনি আপনার বিকাশ একাউন্ট খুলতে পেরেছেন।


যদি এখনো আপনার মনে কোনো প্রশ্ন থাকে তবে আপনি কমেন্ট করে জিজ্ঞেস করুন। এবং পোস্টি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন।

Post a Comment

0 Comments